۳۰ دی ۱۴۰۰ |۱۶ جمادی‌الثانی ۱۴۴۳ | Jan 20, 2022
ইমাম হাসান আল - আস্কারী ( আ .)
ইমাম হাসান আল - আস্কারী ( আ .)

হাওজা / ইমাম হাসান ইবনে আলী ইবনে মুহাম্মাদ ইবনে আলী ইবনে মূসা ইবনে জাফার ইবনে মুহাম্মাদ ইবনে আলী ইবনে হুসাইন ইবনে আলী ইবনে আবী তালিবের ( আ. ) শাহাদাত দিবস উপলক্ষে সকল মুমিন মুসলমান ভাই বোনকে জানাই আন্তরিক শোক ও তাসলিয়াত ( সমবেদনা )।

হাওজা নিউজ বাংলা রিপোর্ট অনুযায়ী, ৮ রবিউল আউয়াল মহানবীর ( সা. ) পবিত্র আহলে বাইতের ( আ .) একাদশ মাসুম ( নিষ্পাপ ) ইমাম হাসান ইবনে আলী ইবনে মুহাম্মাদ ইবনে আলী ইবনে মূসা ইবনে জাফার ইবনে মুহাম্মাদ ইবনে আলী ইবনে হুসাইন ইবনে আলী ইবনে আবী তালিবের ( আ. ) শাহাদাত দিবস উপলক্ষে সকল মুমিন মুসলমান ভাই বোনকে জানাই আন্তরিক শোক ও তাসলিয়াত ( সমবেদনা ) । তাঁর উপাধি যাকী , নাক্বী এবং আল আস্কারী । তাঁর কুনিয়া ( ডাকনাম ) আবু মুহাম্মদ । তিনি আহলুল বাইতের ১২ নিষ্পাপ ইমামের একাদশ ইমাম ।

 তিনি আহলুল বাইতের ১২ নিষ্পাপ ইমামের সর্বশেষ ইমাম (অর্থাৎ দ্বাদশ ইমাম ) হযরত ইমাম মুহাম্মাদ যিনি মুসলিম উম্মাহর বহুল প্রতীক্ষিত ও প্রতিশ্রুত ইমাম মাহদী ( আ .) তাঁর পিতা ।

 প্রসিদ্ধ অভিমত অনুসারে একাদশ ইমাম হাসান আল - আস্কারী ( আ .) ২৬০ হিজরী সালের ১লা রবিউল আউয়াল যালিম লম্পট আব্বাসীয় খলিফা মু'তামিদের নির্দেশে গোপনে প্রদত্ত বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হন এবং ঐ বছরের ৮ রবিউল আউয়াল রোজ শুক্রবার মাত্র ২৮ বছর বয়সে ইরাকের সামার্রা নগরীর আস্কার (সামরিক ক্যান্টনমেন্ট বা সেনানিবাস) এলাকায় নিজ বাসভবনে শাহাদত বরণ করেন ।

 তবে শেখ ও কাফ'আমীর মতে তাঁর শাহাদাত দিবস ২৬০ হিজরীর পহেলা রবিউল আউয়াল। তিনি স্বীয় পিতা মহানবীর ( সা.) পবিত্র আহলুল বাইতের (আ.) দশম ইমাম আলী আল - হাদীর ( আ .) শাহাদাতের পর ২২ বছর বয়সে ইমাম হন । তাঁর ইমামত কাল ছিল ৬ বছর ।

ইমাম হাসান আল - আস্কারী ২৩২ হিজরীর ৮ অথবা ১০ রবীউস সানী মতান্তরে ৪ রবীউস সানী মদীনায় জন্মগ্রহণ করেন । কেউ কেউ উল্লেখ করেছেন যে তিনি ২৩১ হিজরীতে জন্মগ্রহণ করেন । তাঁর মা ছিলেন অত্যন্ত পূণ্যময়ী সতী-সাধ্বী নারী । তাঁর নাম ছিল হুদাইসা । তবে কোনো কোনো সীরাত রচয়িতার মতে তাঁর নাম ছিল সূসান । তিনি ছিলেন সৎকর্মশীল এবং সঠিক ইসলামী দৃষ্টিভঙ্গি ও আকিদা-বিশ্বাসের অধিকারী এক মহীয়সী নারী। তাঁর সুমহান মর্যাদা ও ফযীলতের জন্য ব্যাস এতোটুকুই যথেষ্ট যে তিনি ছিলেন ইমাম হাসান আল-আস্কারীর ( আ .) শাহাদাতের পর আহ্লুলবাইতের - আলাইহিমুস সালাম - অনুসারীদের আশ্রয়স্থল । কারণ ঐ সময় বা যুগ ছিল আহলুল বাইত ( আ .) ও তাঁদের ভক্ত-অনুসারীদের চরম ক্রান্তিকাল ও শ্বাসরুদ্ধকর দুঃসময় ।

    স্মর্তব্য যে ইমাম হাসান ইবনে আলী আল - আস্কারীকে ( আ.) যালিম আব্বাসীয় খিলাফত প্রশাসন বলপূর্বক মদীনা থেকে সামার্রার আস্কারে ( সামরিক এলাকা ) এনে গৃহবন্দী ও অন্তরীন করে রেখেছিল বলেই তাঁর উপাধি ( লকব ) আস্কারী হয়েছে । উল্লেখ্য যে তাঁর শ্রদ্ধেয় পিতা আহলুল বাইতের (আ.) দশম মাসূম ইমাম আলী আল - হাদীকেও ( আ. ) সামার্রার সামরিক এলাকায় ( আস্কার ) গৃহবন্দী করে রেখেছিল তদানীন্তন যালিম আব্বাসীয় খিলাফত প্রশাসন ।

   একাদশ ইমাম হাসান আল - আস্কারীকে (আ.) শাহাদাতের পর তাঁর বাসভবনে পিতা দশম মাসূম ইমাম আলী আল - হাদীর (আ.) কবরের পাশে দাফন করা হয় । আর আস্কার বা সামরিক এলাকায় দীর্ঘদিন গৃহবন্দী থাকার কারণেই এ দুই ( দশম ও একাদশ ) ইমামকে  বলা হয় আল - ইমামান আল - আস্কারীয়ান ।

সূত্র সমূহ :

১ ও ২ . শেখ আব্বাস কোমী প্রণীত

নেগহী বে যেন্দেগনীয়ে চাহরদাহ মাসূম - আলাইহিমুস সালাম - পৃ : ৪৭২ - ৪৭৩ এবং ৫১৫ - ৫১৬  এবং মাফাতীহুল জিনান , পৃ : ৫৩৬

৩. আল্লামা আব্দুর রহমান জামী প্রণীত ( মাওলানা মুহিউদ্দীন খান অনূদিত ) শাওয়াহেদুন নবুওত , পৃ : ২৭৬ ;

৪. আয়াতুল্লাহ জাফার সুবহানী প্রণীত সীরেয়ে পীশভয়ন , পৃ : ৬১৭ - ৬১৮ ;

৫. শেখ হুসাইন ইবনে মুহাম্মাদ ইবনুল হাসান আদ ্দিয়ারবাকরী

প্রণীত তারীখুল খামীস ফী

আহওয়ালি আনফাসিন নাফীস , পৃ : ৩৮৭ - ৩৮৮

সংকলন ও অনুবাদ : মুহাম্মদ মুনীর হুসাইন খান (৮ রবীউল আওওয়াল , ১৪৪৩ হি.)

تبصرہ ارسال

You are replying to: .
4 + 11 =