۲۸ خرداد ۱۴۰۳ |۱۰ ذیحجهٔ ۱۴۴۵ | Jun 17, 2024
গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় এখনো অনেক শহীদের লাশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এবং দখলদার বাহিনী তাদের লাশ তুলতে বাধা দিচ্ছে।
গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় এখনো অনেক শহীদের লাশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এবং দখলদার বাহিনী তাদের লাশ তুলতে বাধা দিচ্ছে।

হাওজা / গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় এখনো অনেক শহীদের লাশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এবং দখলদার বাহিনী তাদের লাশ তুলতে বাধা দিচ্ছে।

হাওজা নিউজ এজেন্সি রিপোর্ট অনুযায়ী, ইউরো-মেডিটারিয়ান হিউম্যান রাইটস ওয়াচ জানিয়েছে, গাজা যুদ্ধের শুরু থেকে নিখোঁজ হওয়া মানুষের সংখ্যা তেরো হাজারে পৌঁছেছে।

ইউরো-মেডিটারেনিয়ান হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ইহুদিবাদী শাসকদের হামলায় ধ্বংসপ্রাপ্ত বাড়িঘর ও ভবনের ধ্বংসাবশেষ অপসারণ এবং ধ্বংসস্তূপের নিচে থাকা মানুষের জীবন বাঁচাতে এবং মৃতদেহ উদ্ধারের জন্য অবিলম্বে বিশেষ দল ও সরঞ্জাম গাজায় স্থানান্তরের আহ্বান জানিয়েছে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা অনুযায়ী, ইহুদিবাদী দখলদার বাহিনী বৃহস্পতিবার থেকে গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় অসংখ্য গণহত্যা চালিয়েছে, যার ফলস্বরূপ তেষট্টি ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন এবং আরও পঁয়তাল্লিশ জন আহত হয়েছেন।

এদিকে, গাজার বেসামরিক প্রতিরক্ষা দলগুলি উপত্যকার দক্ষিণে খান ইউনিসে ১৩টি পচা মৃতদেহ খোজ পেয়েছে।

আজ আল-মানারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা সিভিল ডিফেন্স ঘোষণা করেছে যে তারা খান ইউনিসের আল-বালাদ এবং আমাল এলাকায় আরও তেরোটি পচা মৃতদেহ পেয়েছে।

উল্লেখ্য, ইহুদিবাদী সেনাবাহিনী রোববার ঘোষণা করেছে যে তারা এক মাস খান ইউনিস দখলের পর এলাকা ছেড়েছে।

এদিকে, গাজায় ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে যে ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ইহুদিবাদী সরকারের হামলায় শহীদের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৫শ পঁয়তাল্লিশে এবং আহতের সংখ্যা ৭৬-এ পৌঁছেছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জোর দিয়ে বলেছে যে কিছু শহীদের লাশ এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে পড়ে আছে এবং রাস্তায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এবং দখলদার বাহিনী এই লাশগুলো অপসারণে বাধা দিচ্ছে।

এদিকে গাজার কেন্দ্রস্থল নুসিরাত ক্যাম্পের উত্তরে ইহুদিবাদী সরকারের বর্বর হামলা অব্যাহত রয়েছে। গাজা শহরের দক্ষিণে তেল আল হাউই এলাকায় সাম্প্রতিক হামলায় বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন।

শুক্রবার প্রেস সূত্র জানায়, পশ্চিম তীরের দক্ষিণে বর্বর ইহুদিবাদী আগ্রাসনে আরও একজন ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন।

শাহাব নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে IRNA এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দখলকারী ইহুদিবাদী সরকারের হানাদার বাহিনী পশ্চিম তীরের দক্ষিণে তুবাস শহরের তামুন এলাকায় হামলা চালায়, যেখানে বহু ফিলিস্তিনি শহীদ ও আহত হয়।

IRNA রিপোর্ট করেছে যে আল-আকসা অপারেশনের পর শুরু হওয়া বর্বর ইহুদিবাদী আক্রমণ গাজা এবং পশ্চিম জর্ডানেও ছড়িয়ে পড়েছে। এবং দখলদার ইহুদিবাদী বাহিনী গাজার বিভিন্ন এলাকা এবং পশ্চিম জর্ডানের বিভিন্ন এলাকায় একের পর এক বর্বর আগ্রাসন শুরু করেছে এবং এই আগ্রাসনের পরিধি বেড়েই চলেছে।

تبصرہ ارسال

You are replying to: .