۲۴ تیر ۱۴۰۳ |۷ محرم ۱۴۴۶ | Jul 14, 2024
hi
ইহুদিবাদী অবৈধ সরকারের একজন মন্ত্রী জানিয়েছেন, লেবাননের সাথে সম্ভাব্য যুদ্ধে ভয়াবহ রকমের ক্ষতি হতে পারে এবং এজন্য তারা গণ কবরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন!

হাওজা / লেবাননের সাথে ইসরায়েলের উত্তেজনা বেড়েই চলেছে এবং দুই পক্ষের মধ্যে যেকোনো সময় বড় যুদ্ধ শুরু হতে পারে।

হাওজা নিউজ এজেন্সি রিপোর্ট অনুযায়ী, ইহুদিবাদী মন্ত্রীর তথ্য ‘হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ-ভীতির মধ্যে গণ কবরের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরায়েল’

লেবাননের (হিজবুল্লাহ) সাথে ইসরায়েলের উত্তেজনা বেড়েই চলেছে এবং দুই পক্ষের মধ্যে যেকোনো সময় বড় যুদ্ধ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইসরায়েল এরইমধ্যে লেবাননের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধ শুরুর জন্য বর্বর সামরিক বাহিনীকে অনুমোদন দিয়েছে। সম্ভাব্য যুদ্ধ সম্পর্কে ইসরায়েলের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী মাইকেল ম্যালচিলি চ্যানেল ফোরটিনকে বুধবার বলেছেন, "লেবাননের সাথে যুদ্ধে ব্যাপকভাবে হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে। এজন্য তার মন্ত্রণালয় যুদ্ধ সম্পর্কিত অনেকগুলো বিষয় নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে।"

বরাবরের মতই ইহুদিবাদী অবৈধ সরকারের সংশ্লিষ্টরা হিজবুল্লাহর সম্ভাব্য হামলায় হতাহত ও মৃতের প্রকৃত সংখ্যা লুকাতে আগে থেকেই গণ কবর খুঁড়ে রাখছে বলে চাউর হয়েছে। গণ কবর সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে ম্যালচিলি নিশ্চিত করেন, তারা অনেক বেশি মৃত্যুর আশঙ্কা করছেন। তিনি বলেন, “আমরা অফিসে দফায় দফায় বৈঠক করছি। (লেবাননের সীমান্তবর্তী ইসরায়েলের) উত্তরাঞ্চলে বড় কিছু ঘটতে পারে।”

গত মঙ্গলবার ইসরায়েলের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক যুদ্ধের ঘোষণা দেয়ার পর বুধবার হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, "সর্বাত্মক যুদ্ধ শুরু হলে ইসরায়েলের কোথাও কোনো নিরাপদ স্থান থাকবে না।" তিনি আরো বলেন, "ইসরায়েলের জল, স্থল এবং আকাশ পথে একযোগে হামলা করা হবে।"

হিজবুল্লাহর সঙ্গে সম্ভাব্য যুদ্ধের ভীতি ইসরায়েলের সাধারণ জনগণের পাশাপাশি সাবেক উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তা ও নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মধ্যেও ছড়িয়ে পড়েছে। তাদের অনেকেই যুদ্ধবাজ ইসরায়েল সরকারকে হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধে জড়াতে অনুৎসাহিত করছে।

ইহুদিবাদী অবৈধ সরকারের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা পরিষদের সাবেক প্রধান জিওরা ইল্যান্ড প্রতিরোধ যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে ইহুদিবাদী সরকারের পরাজয় স্বীকার করার পাশাপাশি লেবাননের হিজবুল্লাহ'র সঙ্গে সম্ভাব্য যুদ্ধ বিষয়ে ইসরায়েলের বর্তমান সরকারের নেতাদের সতর্ক করে বলেন যে, ''(হামাস কিংবা অন্যান্য প্রতিরোধ সংগঠনের কথা বাদ) তারা যদি কেবল হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে যুদ্ধের কথাও বলেন- তবুও তারা একটি মস্ত বড় ভুল করতে যাচ্ছে।"

তিনি বলেন, "হিজবুল্লাহ একটি উন্নত ও অনন্য সেনাবাহিনী! তাদের প্রায় ৭০,০০০ থেকে ৮০,০০০ সংগঠিত, সু-প্রশিক্ষিত এবং সুসজ্জিত যুদ্ধ বাহিনী রয়েছে এবং সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এই সংগঠনটি ব্যাপক পরিমাণ উন্নত অস্ত্র ও ড্রোন শক্তি দ্বারা নিজেদের সমৃদ্ধ করেছে।"

তিনি আরও জোর বলেন যে, "হিজবুল্লাহর (ক্ষেপণাস্ত্র এবং প্রতিরক্ষা) ব্যবস্থা উন্নত হওয়ার দিক থেকে ইহুদিবাদী শাসকদের হাতে থাকা ব্যবস্থার চেয়ে দুর্বল নয়।"

এদিকে, হিজবুল্লাহর সাথে যুদ্ধ শুরু হলে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আয়রন ডোম কিংবা অন্যান্য প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ঠিকমতো কাজ করবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে আমেরিকা। হামাসের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে আমেরিকা ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্রের সরকারকে সর্বাত্মক সমর্থন ও সহযোগিতা করলেও লেবাননের হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে বড় ধরনের যুদ্ধে জড়াতে বারংবার ইসরায়েলকে অনুৎসাহিত করছে।

উল্লেখ্য যে, ২০০৬ সালে হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে ৩৪ দিনের যুদ্ধে ইহুদিবাদী দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েল চরম ধরাশায়ী হয়ে জাতিসংঘের মাধ্যমে তড়িৎ যুদ্ধবিরতি চুক্তি করতে বাধ্য হয়েছিল।

تبصرہ ارسال

You are replying to: .